শিরোনাম

আগামী ১৯ নভেম্বর থেকে ইজতেমা শুরু ফেনী সদর উপজেলা ধর্মপুরে

ফেনী সদর প্রতিনিধি:   বাংলাদেশের ৬৪ জেলার ন্যায় ৩দিন ব্যাপী ফেনী জেলা ইজতেমা আগামী ১৯ নভেম্বর ২০১৮ইং থেকে শুরূ হওয়ার কাজ চলছে। টঙ্গি বিশ্ব ইজতেমার আগে পরে গত প্রায় এক দশক যাবত প্রতি বছর বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় জেলা ভিত্তিক ইজতেমা অনুষ্টিত হয়ে আসছে। জেলা ভিত্তিক এ ইজতেমা অনুষ্টিত হওয়াতে বিপুল সংখ্যাক ধর্মপ্রান মুসল্লির উপস্থিত হওয়ার কারনে তারা তাদের ইমান আমলের উন্নতি ও যাবতীয় গুনাবলীর উৎকর্ষসাধনের সুযোগ পাচ্ছে। টঙ্গি বিশ্ব ইজতেমার আগে পরে জেলা ভিত্তিক ইজতেমা করার বিষয় বিশ্ব আমির হযরত মাওলানা সাদ দাঃবাঃ কর্তৃক বাংলাদেশের শুরা ও পুরানা সাথিদের পায়সালা হয়। এর ধারাবাহিকতা বাংলাদেশের ভিবিন্ন জেলায় জিম্মাদার সাথিদের সাথে পরামর্শ ক্রমে জেলা ভিত্তিক ইজতেমা অনুষ্টানের জন্য তারিখ ও স্থান নির্ধারন করা হয়েছে। সে মতে ফেনী জেলার বেশির ভাগ মেহনত করনেওয়ালা তাবলিগের সাথিদের উপস্থিতিতে জেলার ৪জন সুরার পরামর্শক্রমে আগামী ১৯,২০ও ২১ শে নভেম্বর ২০১৮ইং তারিখে ফেনী জেলার ইজতেমার তারিখ পায়সালা হয়। এ উপলক্ষে ধর্মপুরে আমিন বাজার সংলগ্ন পুরাতন বিমান বন্দর এলাকায় ইজতেমার মাঠের স্থান নির্ধারন করা হয়। ইজতেমা মাঠের কাজ গত ২০/১০/২০১৮ইং তারিখে মাননীয় সাংসদ ফেনী-২,নিজাম উদ্দিন হাজারী উদ্বোধন করেন । ইজতেমা উপলক্ষে মাঠে কাজ চলছে দৈনিক দুই হালকা ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন সাথিদের পালাক্রমে কাজ চলছে।উল্লেখ্য যে ইতিমধ্যে বাংলাদেশের দিনাজপুর,বান্দরবন,পটুয়াখালী,ভোলাএবং ঢাকা জেলায় অত্যন্ত শান্তিপুর্নভাবে বিপুল সংখ্যাক ধর্মপ্রান মুসলমানের উপস্থিতিতে ইজতেমার কাজ সম্পন্ন হয়েছে।আগামী ১,২ ও ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ইং রংপুর,জামালপুর,রাজশাহী,জিনাইদহ,জয়পুরহাট এবং ৮,৯,১০ ডিসেম্বর ২০১৮ইং ফরিদপুর ,মৌলভী বাজার এবং কক্সবাজার জেলায় ইজতেমার পায়সালা হয়েছে । ফেনী ইজতেমা উপলক্ষে কাকরাইলের ২ শুরা খান শাহাবউদ্দি নাসিম ও প্রফেসর ইউনুছ শিকদার কর্তৃক সাক্ষরিত চিটি জেলা শুরা ও পুলিশ সুপার ফেনীর নিকট হস্তান্তর করা হয় ।ফেনী জেলার সকল জিম্মাদার পুরান সাথি তাদেরকে সকল পেশার মানুষকে ইজতেমায় শরিক হওয়ার জন্য দাওয়াত,নফল রোজা রেখে ও রাত্রে তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ে দোয়ার এহতেমাম এবং মা বোনদেরকের দোয়ায় মশগুল করার জন্য অনুরোধ করা হল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*