শিরোনাম

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-৩ আসনে আবুল বাশারকে চায় জনগন।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী।ফেনী-৩ আসনে দাগনভূঞার কৃতি সন্তান বিশিষ্ট শিল্পপতি ও বাশার গ্রুপের চেয়ারম্যান যুবনেতা আবুল বাশার।২০০৮ সালে দলীয় মনোনয়ন পেলেও নির্বাচনে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়েছিল ফলে অল্প কিছু বিজয়টা অনিশ্চিত হয়ে যায়। আর ২০১৪ সালেও প্রধানমন্ত্রী দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়ন দিয়েছিলেন জোটবদ্ধ নির্বাচনের কারণে পরবর্তীতে আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়া হয়েছিল।নেত্রীর সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে নিজের স্বার্থকে বিসর্জন দিয়ে দলের প্রতি আস্থা রেখে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিয়েছিল।এব্যাপারে বিশিষ্ট শিল্পপতি আবুল বাশার প্রতিনিধিকে জানান আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ইতিমধ্যে নির্বাচনের প্র¯তুতি নিযেছি দল অতীতের কর্মকান্ড বিবেচনা করে আমাকে মূল্যায়ন করবে বলে আমি আশাবাদি। তবে সভানেত্রীর সিদ্ধান্ত মেনে কাজ করে যাবো,দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করে আনা দলীয় নেতাকর্মীদের নৈতিক দায়িত্ব। উন্নয়নের স্বার্থে, দেশের কল্যাণে আ”লীগ প্রার্থীকে বিজয়ী করে আনতে হবে। দাগনভূঞা-সোনাগাজীর জনগন অবহেলিত,এই অবহেলিত জনতার পাশে থেকে ব্যক্তি উদ্যোগে স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসা স্থাপন করেছি। সাধ্যমতো দরিদ্র জনগোষ্ঠির আর্থিক সহযোগীতা ও কল্যাণে কাজ করেছি।তিনি আরো জানান আমার উদ্যোগে ২০১২ সালে দুই উপজেলায় ১০টি স্কুল ভবন ও ২৫টি রাস্তা অনুমোদন করিয়ে দিয়েছি। এলাকার মানুষ যখনই কোন প্রয়োজনে আমার কাছে হাজির হয়েছে তখনি তাদের প্রয়োজন মেটানোর চেষ্টা করেছি। মাদকের বিষয় তিনি বলেন মাদকের ভয়াবহতা রোধে কঠোর পদক্ষেপ সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ নিমূলে সকলকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাবো। মাদক বিক্রেতা ও মাদক সেবী পরিবার ও সমাজের জন্য অশান্তি,এসব বিষয়ে কাউকে ছাড় দেবো না।মাদকের ভয়াবহতা রোধে কঠোর পদক্ষেপ নেবো, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ নিমূলে সকলকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাবো। স্বাস্থ্য সেবা বিষয় বলেন স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে সরকারী হাসপাতাল ১০০ শয্যায় উন্নিত করবো, দুই উপজেলায় মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠা করবে,বেকারত্ব দূরীকরণে শিল্প কারখানা প্রতিষ্ঠা করবো। দুই উপজেলার ব্রিজ-কালর্ভাট, রাস্তাঘাট এর উন্নয়নে কাজ করে যাবে। ভবিষ্যতে বেকারত্ব দূরীকরণে বেকের বাজারে শিল্প-কারখানা প্রতিষ্ঠার জন্য জায়গা নেয়া আছে। আশাকরছি বছর দুয়েকের মধ্যে কাজ শুরু করবো।আওয়ামীলীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জনগণের কাছে তুলে ধরতে দীর্ঘদিন ধরে ফেনী-৩ আসনের দাগনভূঞা ও সোনাগাজী উপজেলার বিভিন্ন বাজারে এবং গ্রামে গ্রামে চলছে উঠান বৈঠক, লিফলেট বিতরণসহ সভা-সমাবেশ। প্রত্যেক সপ্তাহে চলে এই কার্যক্রম,নিজ উদ্দেগে বিগত বছরগুলোতে বন্যায় খতিগ্রহস্ত ত্রান ও নগত অর্থ করি।শীতকালে দুই উপজেলায় অসহায় মানুষের কম্বল বিতরন করি।দলীয় সকল সমাবেশে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বরাদ্দ দিয়ে আসছি,আগামীতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে জানায়। এতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ আওয়ামীলীগের দূরদিনের কান্ডারী ফেনী-৩ আসনে জাতীয় নির্বাচনে আ”লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আবুল বাশার।শেখ হাসিনার সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তৃনমূলে তুলে ধরতে নেতাকর্মীদের নিয়ে গ্রামে গ্রামে উঠান বৈঠক ও সমাবেশ করে চলেছেন বিশিষ্ট শিল্পপতি আবুল বাশার।তার সহযোগীতা ও তৃণমূলে নিয়মিত যোগাযোগ রাখার কারণে উজ্জীবিত হয়ে উঠেছেন সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা। ফলে চাঙাভাব দেখা দিয়েছে তৃণমুলের রাজনীতিতে।এসময় তিনি বলেন আল্লাহর রহমতে আমি যদি নির্বাচিত হতে পারি জনগনের জন্য বেকারত্ব দুর করার লক্ষে আত্ব-সামাজিক উন্নয়নে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*